Scroll Down

একটি বাণিজ্যিক উদ্যোগ নেওয়ার সর্বপ্রথম কাজ হলো উদ্যোগের জন্য নির্দিষ্ট শিল্পের সুনির্দিষ্ট একটি বাজার নির্বাচন করা। আপনি যদি অনলাইনে ই-কমার্স বাণিজ্য পরিচালনার উদ্যোগ গ্রহণ করতে চান কিন্তু কোন পণ্য নিয়ে উদ্যোগ গ্রহণ করা যেতে পারে তা বুঝতে পারছেন না, তাহলে এই পোস্টটি মনোযোগ দিয়ে পড়ুন। এই পর্বে জনপ্রিয় eCommerce Business পণ্য সম্পর্কে ধারণা দেওয়া হয়েছে যার চাহিদা মানুষের কাছে সব সময় রয়েছে।

১. বৈদ্যুতিক যন্ত্রাংশ:

নির্মাণশিল্পে ইলেকট্রনিক্স বৈদ্যুতিক হার্ডওয়ার যন্ত্রের ব্যবহার বাধ্যতামূলক। এমন কোন ভবন নেই যা নির্মাণে হার্ডওয়ার যন্ত্রাংশ ব্যবহার করা হয় না। দৈনন্দিন জীবনে আমাদের নানা ধরনের হার্ডওয়্যার যন্ত্রের ব্যবহার হয়ে থাকে যেমন- ফ্যান, বাল্ব, সুইচ, তার এবং বিভিন্ন ধরনের ইলেকট্রনিক্স পণ্য সামগ্রী। এ ধরনের পণ্য সামগ্রীর চাহিদা আগে যেমন ছিল বর্তমানেও এগুলোর চাহিদা বেড়েই চলছে। এখন পর্যন্ত অনলাইনে এ ধরনের ভালো মানের কোন স্টোর নেই। শুধুমাত্র বৈদ্যুতিক যন্ত্রাংশের জন্যই একটি হার্ডওয়্যার স্টোর তৈরি করা যেতে পারে।

২. নির্মাণ সামগ্রী

নির্মাণশিল্পের মতই আরেকটি জনপ্রিয় বাণিজ্যিক ক্যাটাগরি হলো নির্মাণসামগ্রী বা কাঁচামাল। এই ক্যাটাগরির কাঁচামালগুলো হল রট, বালু, সিমেন্ট, স্টিল সহ নানান নির্মাণ পণ্যসমূহ। আমাদের চারপাশে প্রতিনিয়ত যে পরিমাণ নতুন নতুন ভবন নির্মাণ হচ্ছে তাতে বোঝাই যায় ভবিষ্যতে এগুলোর চাহিদা বৃদ্ধি পেতে থাকবে। নির্মাণ সামগ্রী সমূহের জন্য একটি অনলাইন স্টোর তৈরি করে বাণিজ্য শুরু করা যেতে পারে।

৩. বাইসাইকেল new ecommerce business ideas:

পরিবহণ শিল্পে বাইসাইকেলর জনপ্রিয়তা দিন দিন বাড়ছে। বিশেষ করে শহরগুলোতে অধিক যানজটের কারণে মানুষের মধ্যে বাইসাইকেলের ব্যবহার বৃদ্ধি পেয়েছে। এছাড়াও বর্তমানে রয়েছে নানা রকমের রাইড শেয়ারিং এ্যাপস যার ফলে ডেলিভারি শিল্প ও পেশাগত কাজে বাইসাইকেলের ব্যবহার লক্ষ্য করা যাচ্ছে। উইকিপিডিয়ার তথ্যমতে শুধুমাত্র 2017 সালে বিশ্বব্যাপী 45 মিলিয়ন ডলার সমমূল্যের বাইসাইকেল পণ্য বিক্রয় হয়েছে। 2016 সালের শুধুমাত্র আমিরিকায় বিক্রি হয়েছে 6 বিলিয়ন ডলার। এছাড়াও বাংলাদেশে প্রতিবছর অনেক সাইকেলের চাহিদা রয়েছে। এ রকম ই-বানিজ্য পরিচালনা করার মাধ্যমে বাণিজ্য শুরু করা যেতে পারে।

৪. ঔষধালয়:

ঔষধ চিকিৎসা শিল্পের অন্যতম একটি বাণিজ্যিক বিভাগ যা মানুষের জীবনের অপরিহার্য অঙ্গ এবং এর চাহিদা কখনই কমবেনা। একটি অনলাইন ঔষধালয় বা ফার্মেসি তৈরি করে বাণিজ্য পরিচালনা করা যেতে পারে এবং অনলাইনে প্রয়োজনীয় ঔষধ সামগ্রী সংগ্রহে গ্রাহকদের সহায়তা করা যেতে পারে।

৫. পোশাক:

দ্রুত বেড়ে ওঠা অনলাইনে অন্যতম বাণিজ্যিক বিষয় হচ্ছে ফ্যাশন ও লাইফ স্টাইল। পরিসংখ্যান জরিপে জানা গিয়েছে ফ্যাশন ও লাইফ স্টাইল ক্যাটাগরিটি ই-বানিজ্যের অনেক বড় একটি অংশ। এই পণ্যটিকে কেন্দ্র করেই একটি অনলাইন eCommerce Business তৈরি করা যেতে পারে।

৬. শিশুদের খেলনা সামগ্রী

মানুষের জন্মের হার যেভাবে বৃদ্ধির পাচ্ছে 2024 সাল নাগাদ বিশ্বব্যাপী শিশুদের খেলনা সামগ্রীর বিক্রেতা 7.6 মিলিয়ন ডলারে উন্নীত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। খেলনার ব্যবহারে শিশুদের যেমন মেধা বিকাশে সহায়তা করে ঠিক তেমনি তাদেরকে নিজেদের সাথে খেলায় ব্যস্ত রাখতে সহায়তা করে। প্রতিটি পরিবারের শিশুদের বিনোদন ও মেধা বিকাশ ঘটানোর জন্য খেলনা পণ্য সামগ্রীতে যথেষ্ট অর্থ ব্যয় করে থাকে যার ফলে প্রায় প্রতিটি পরিবারেই শিশুদের মধ্যে একাধিক খেলনা দেখা যায়। তাই শুধুমাত্র শিশুদের দৈনন্দিন খেলনা পণ্য সামগ্রী নিয়ে অনলাইন বানিজ্য শুরু করা যেতে পারে।

৭. ব্যাগ

ব্যাগ হলো জনপ্রিয় আরেকটি বাণিজ্যিক পণ্য সামগ্রী । দৈনন্দিন জীবনে ব্যাগের ব্যবহার প্রায় সবাই করে থাকে। এক প্রতিবেদনে বলা হয় বিক্রেতারা 2018 সালে 47 বিলিয়ন ডলারের পণ্য সামগ্রীতে অর্থ ব্যয় করেছে। স্কুল, কলেজ থেকে শুরু করে কর্ম ক্ষেত্রে ব্যাগ পণ্য সামগ্রী ব্যবহৃত হচ্ছে । শুধুমাত্র এই পণ্য সামগ্রীটি কেন্দ্র করে একটি অনলাইন বাণিজ্যিক উদ্যোগ গ্রহণ করা যেতে পারে।

৮. কসমেটিকস

শুধুমাত্র কসমেটিক্স পণ্য নিয়ে অনলাইনে ই-কমার্স বাণিজ্য শুরু করা যেতে পারে। forbes এর সূত্র মতে বিশ্বব্যাপী কসমেটিকস পণ্যের বাজার মূল্য প্রায় 532 বিলিয়ন ডলার। এবং বাৎষরিক চাহিদা বৃদ্ধির হার 5 থেকে 7 শতাংশ। স্কিন কেয়ার, পারফিউম, হেয়ার ড্রায়ার, শ্যাম্পু, ফেস পাউডার, মেক-আপ ইত্যাদি পণ্য হলো এই ক্যাটাগরির অন্তরভুক্ত । এই জনপ্রিয় পণ্য যেহেতু নারীরা বেশি ব্যবহার করে থাকে সেহেতু এটি হতে পারে নারী উদ্যোক্তাদের জন্য উপযুক্ত ই-কমার্স বাণিজ্য।

৯. আসবাবপত্র:

প্রয়োজনে হক বা অপ্রয়োজনে হক ঘরের সৌন্দর্য বৃদ্ধিতে প্রতিটি ঘরে আসবাবপত্রের ব্যবহার লক্ষ করা যায়। পাশাপাশি প্রাতিষ্ঠানিক কাজেও আসবাবপত্রের ব্যবহারে ব্যাপক চাহিদা রয়েছে । গবেষণা ইনস্টিটিউটের তথ্যানুসারে, বিশ্বব্যাপী আসবাবপত্রের কাজ বার্ষিক ৫ শতাংশ হারে বৃদ্ধি পেয়ে ৪৮০ বিলিয়ন ডলার অনুমান করা হচ্ছে। ঘরের বা প্রতিষ্ঠানের জন্য আসবাবপত্র দৈনন্দিন জীবনের প্রয়োজনীয় পণ্য সামগ্রী যার প্রয়োজনীয়তা সব সময় থাকবে ।এমন আসবাবপত্র যা ব্যক্তিগত ও প্রাতিষ্ঠানিক কাজে ব্যবহৃত হয় তা অনলাইনের মাধ্যমে ই-বাণিজ্য পরিচালনার উদ্যোগ গ্রহণ করা যেতে পারে।

১০. ইলেক্ট্রনিক্স

eCommerce Business এর জনপ্রিয় একটি ক্যাটাগরি হলো ইলেক্ট্রনিক্স। এই ক্যাটাগরির সবচেয়ে জনপ্রিয় পণ্যসমূহ হলো- টিভি, ফ্রিজ, এসি, মোবাইল, স্মার্টঘড়ি, ওয়াশিং মেশিন ইত্যাদি। বিভিন্ন ব্র্যান্ডে সেলার হিসেবে যুক্ত হয়ে তাদের পণ্য সমূহ অনলাইনে মাধ্যমে ই-কমার্স প্রক্রিয়ায় একটি ইলেকট্রনিক শপ শুরু করা যেতে পারে। যেহেতু ইলেকট্রনিক্স পণ্যগুলো অনলাইন ভিত্তিক হবে সেহেতু আকর্ষণীয় স্থানে শো-রুম ভাড়া নেয়ার কোন প্রয়োজন হবে না। যে কোন যায়গা থেকে ওয়েব সাইট তৈরি করার মাধ্যমে ই-কমার্স বাণিজ্য শুরু করা যেতে পারে।

আজকের এই পর্বে ১০টি জনপ্রিয় ব্যবসায়ীক ধারণা দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছে। আশা করা যায় ১০টির যেকোন একটি নিয়েই ই-বাণিজ্য শুরু করে সফল হওয়া সম্ভব।

Read More Article

ডেটাবেজ ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম

অসংখ্যাবাচক/বর্ণবাচক বা নন নিউমেরিক ডেটা কাকে বলে?উত্তরঃ যে সমস্ত ডেটা সংখ্যা প্রকাশ না করে বর্ণ, শব্দ, ছবি, গ্রাফিক্স ইত্যাদি প্রকাশ করে তাকে নন-নিউমেরিক ডেটা বলে।

Read More »
what is keyword research in digital marketing
Digital Marketing
Md. Robiul Islam

২০২১ সালের ‍ Most Important SEO Strategy

কভিড 19 এর কারণে 2020 সাল ছিল পৃথিবীব্যাপী মহামারির বছর। যার কারণে অনেক নতুন উদ্যোক্তা ই-কমার্স ব্যবসা শুরু করেছেন। এত বেশি ই-কমার্স ব্যবসা শুরু হওয়ায়

Read More »

2 thoughts on “New eCommerce Business Ideas”

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *